edited-প্রতিবেদন-তাবলিগ পরিচালনায় ২৪ সদস্যের কমিটি গঠন ও উপদেষ্টা

আতাউর রহমান খসরু


টঙ্গীর ইজতেমার মাঠে সাদপন্থী সন্ত্রাসীদের হামলাসহ চলমান তাবলীগ সংকট নিরসনে দেশের শীর্ষ আলেম ও তাবলিগী মুরব্বিদের এক বৈঠকে তাবলীগ জামাত পরিচালনার জন্য ২৪ সদস্যের পরিচালনা কমিটি গঠন করা হয়েছে। বাংলাদেশে কওমি মাদরাসা শিক্ষাবোর্ড বেফাকের সিনিয়র সহ-সভাপতি আল্লামা আশরাফ আলীকে এই পরিচালনা কমিটির আহবায়ক করা হয়েছে।

গত ১০ ডিসেম্বর হাটহাজারী মাদরাসায় অনুষ্ঠিত বৈঠকে গৃহীত সিদ্ধান্তের আলোকে এই কমিটি গঠন করা হয়।  এই তথ্য জানিয়েছেন বেফাকের সহ-সভাপতি ও জামিয়া হোসাইনিয়া ইসলামিয়া আরজাবাদ মাদরাসার প্রিন্সিপাল মাওলানা বাহাউদ্দিন যাকারিয়া।

১৯ ডিসেম্বর বুধবার সকালে ঢাকার যাত্রাবাড়ী অবস্থিত বেফাক অফিসে এই বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। আল্লামা আশরাফ আলীর সভাপতিত্বে বৈঠকে অংশগ্রহণ করেন ঢাকার প্রতিনিধিত্বশীল আলেম ও তাবলিগী মুরব্বিগণ।

পরিচালনা কমিটিতে থাকছেন যারা
বৈঠক সূত্র জানায়, তাবলীগ জামাত পরিচালনার জন্য গঠিত কমিটির ২৪ সদস্যের মধ্যে ৭ জনকে রাখা হয়েছে কাকরাইল থেকে এবং বাকি নামগুলো নেয়া হয়েছে উলামায়ে কেরামের মধ্য থেকে। তবে কাকরাইলের ৭ জনের নাম এখনও চূড়ান্ত হয়নি। কাকরাইলের মুরব্বিগণই তাদের নাম চূড়ান্ত করবেন।

উলামায়ে কেরামের মধ্য এই কমিটিতে রয়েছেন, মাওলানা মাহমুদুল হাসান, মাওলানা আবদুল কুদ্দুস, মাওলানা মাহফুজুল হক, মাওলানা বাহাউদ্দিন যাকারিয়া, মাওলানা কেফায়াতুল্লাহ আযহারী, মুফতি মাসউদুল করীম, মাওলানা আবদুল হামিদ (মধুপুরের পীর) প্রমুখ।

এছাড়াও হাইআতুল উলয়ার অংশীদার অন্যান্য বোর্ড থেকে একজন করে প্রতিনিধি রাখা হয়েছে এই কমিটিতে।
তবে মাওলানা ফরীদ উদ্দীন মাসউদের নেতৃত্বাধীন বেফাকুল মাদারিসিদ দ্বীনিয়া বাংলাদেশ-এর কোনো প্রতিনিধি রাখা হয়নি কমিটিতে। অবশ্য তাবলীগ জামাতের বিতর্কিত মুরব্বি মাওলানা সাদের পক্ষাবলম্বন এবং টঙ্গীর হামলার পর উলামায়ে কেরামের বিরুদ্ধাচরণের কারণে ১০ ডিসেম্বর হাটহাজারীর বৈঠকেও এই বোর্ডের কোনো প্রতিনিধিকে আমন্ত্রণ জানানো হয়নি।

হাটহাজারীর বৈঠকে উত্থাপিত অন্য দাবিগুলো শান্তিপূর্ণভাবে আদায়ের চেষ্টা অব্যাহত থাকবে বলেও বৈঠকে সিদ্ধান্ত হয়েছে।

উক্ত বৈঠকে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন- মাওলানা আবদুল কুদ্দুস, মাওলানা ওমর ফারুক (কাকরাইল), মাওলানা মাহফুজুল হক, মাওলানা যোবায়ের আহমদ চৌধুরী, মাওলানা কেফাতুল্লাহ আযহারী, মাওলানা আনিসুর রহমান, মাওলানা মনিরুজ্জামান, মাওলানা লোকমান মাজহারী প্রমুখ।

উপদেষ্টা

 

ঢাকার যাত্রাবাড়ী জামিয়া ইসলামিয়া দারুল উলুম মাদানিয়া মাদ্রাসায় তাবলীগ জামাতের পাঁচ সদস্যের উপদেষ্টা কমিটি গঠনের পর তাবলীগের ‘মুরব্বিরা’ জানিয়েছেন, এখন থেকে কাকরাইলে মজলিশে শূরা সদস্যদের মধ্যে কোনো বিষয়ে দ্বিমত হলে তার সমাধান মিলবে এই উপদেষ্টা কমিটির কাছে।

কমিটির সদস্যরা হলেন- মালিবাগ জামিয়া শারইয়্যাহ মাদ্রাসার শাইখুল হাদিস আল্লামা আশরাফ আলী, যাত্রাবাড়ী জামিয়া ইসলামিয়া দারুল উলুম মাদানিয়া মাদ্রাসার মুহতামিম আল্লামা মাহমুদুল হাসান, কওমি মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ডের বেফাকের ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব আল্লামা আব্দুল কুদ্দুছ, মুফতি মুহাম্মদ আব্দুল মালেক ও শোলাকিয়া ঈদগাহের খতিব মাওলানা ফরীদ উদ্দীন মাসঊদ।

যাত্রাবাড়ীর ওই সভায় তাবলীগ জামাতের ‘মারকাজ’ কাকরাইলের ১১ জন শূরা সদস্যের মধ্যে ১০ জন উপস্থিত ছিলেন। অসুস্থতার কারণে একজন উপস্থিত হতে পারেননি বলে জানা যায়।

উপস্থিত শূরা সদস্যরা হলেন- মাওলানা যুবায়ের আহমদ, রবিউল হক, মোহাম্মদ হোছাইন,ফারুক, খান শাহাবউদ্দীন নাসিম, ওমর ফারুক, মোশাররফ হোসেন, ওয়াসিফুল ইসলাম, মুহাম্মদ ইউনুছ শিকদার ও শেখ নূর মুহাম্মদ।

Leave a Reply